1. Saifuddin8600@gmail.com : S.M Saifuddin Salehi : S.M Saifuddin Salehi
  2. Journalistmmhsarkar24@gmail.com : Md: Mahidul Hassan Mahi : Md: Mahidul Hassan Mahi
  3. rajuahamad717@gmail.com : Md Raju Ahamed : Md Raju Ahamed
  4. rakibulpress51@gmail.com : Rakibul Hasan : Rakibul Hasan
  5. rajruhul@gmail.com : মোঃ রুহুল আমীন : মোঃ রুহুল আমীন
  6. prosajjad@gmail.com : Sazedur Rahman Sajjad : Sazedur Rahman Sajjad
  7. shorifulshorif01@gmail.com : Md shoriful Islam Shorif : Md shoriful Islam Shorif
  8. dailyatrai@gmail.com : Md Rasel Kobir : Md Rasel Kobir
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
add

জোয়ারের পানির মধ্যে গায়ে হলুদ

সাইফুদ্দিন, নিজস্ব প্রতিনিধি:-
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০
  • ১১১ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার কলাউপাড়া গ্রামটি জোয়ারের পানিতে থইথই করছে। এর মধ্যেই গায়ে হলুদের আয়োজন করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন লালুয়া ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন ফকির।

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার কলাউপাড়া গ্রামে জোয়ারের পানির মধ্যে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বাড়ির উঠানে পানি, ঘরের ভেতরে পানি। গ্রামীণ মেঠো পথ, কৃষি জমি—সব জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। এক কথায় জোয়ারের পানিতে ভাসছে পুরো গ্রাম। এমন অবস্থার মধ্যে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় একটি বিয়ের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হয়েছে। উপজেলার কলাউপাড়া গ্রামের সেই অনুষ্ঠান এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে ব্যাপক আলোচিত।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, লালুয়া ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন ফকির গত ২৯ জুলাই বিয়ে করেন। তাঁর শ্বশুরবাড়ি রাঙ্গাবালী উপজেলার গাববুনিয়া গ্রামে। ২০ আগস্ট তিনি নববধূকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। ২২ আগস্ট দুপুরে জোয়ারের পানির মধ্যেই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হয়। জোয়ারের পানিতে যখন চারদিক থই থই করছে, তখন তাঁর বাড়ির উঠানে চেয়ার পেতে বর-কনেকে হলুদ দিয়ে গোসল করানো হয়। এতে স্বজনেরা অংশ নেন।
মহিউদ্দিনের বাবা জানান,
কী করমু কয়ন? ঘরে পানি, বাইরে পানি। নাইম্মা কোনো হানে যে যামু, হেই পরিস্থিতি নাই। বাধ্য অইয়াই বাড়ির উডানে অলুদের আয়োজন হরতে অইছে।

জোয়ারের পানির মধ্যে ব্যতিক্রমী গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানের আয়োজন সবাইকে আকৃষ্ট করেছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পাস করা মো. ইব্রাহিম খলিল। তিনি বলেন, ‘আমাদের সুখ-শান্তি কিছুই নাই। একটি জনপদ সব সময় পানিতে ডুবে থাকে, আর তা নিয়ে কারও মাথাব্যথা নেই। এটা হতে পারে? জীবনকে তো থামিয়ে রাখা যাবে না। জীবন চলবেই। যে কারণে এমন একটি আয়োজন করতে হয়েছে। এটা সুখের সঙ্গে কষ্টের চিত্রও বহন করে।’

মহিউদ্দিনের বাবা আবদুল বারেক ফকির আরও বলেন, তয় মনডায় শান্তি পাই নাই। আত্মীয়-স্বজন কাউরেই দাওয়াত করতে পারি নাই। গ্রামের মানুষ রান্না কইররা খাইবে, হেই পরিস্থিতিডা পর্যন্ত নাই। গ্রামের মানুষ দেওইর পানি ধইর‌্যা রাইখ্যা, কোনো কোনো সময় দুরে গোনে পানি আইন্যা রান্নার কাজ হরে। একটা কষ্টের জীবন আমরা পার করছি।’

add

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর...
add
add

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫২
  • ১২:০৯
  • ৪:৪৬
  • ৬:৫৮
  • ৮:২৪
  • ৫:১৭
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত /দৈনিক আত্রাই এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
কারিগরি সহযোগিতায়: মোস্তাকিম জনি