1. Saifuddin8600@gmail.com : S.M Saifuddin Salehi : S.M Saifuddin Salehi
  2. Journalistmmhsarkar24@gmail.com : Md: Mahidul Hassan Mahi : Md: Mahidul Hassan Mahi
  3. rajuahamad717@gmail.com : Md Raju Ahamed : Md Raju Ahamed
  4. rakibulpress51@gmail.com : Rakibul Hasan : Rakibul Hasan
  5. rajruhul@gmail.com : মোঃ রুহুল আমীন : মোঃ রুহুল আমীন
  6. prosajjad@gmail.com : Sazedur Rahman Sajjad : Sazedur Rahman Sajjad
  7. shorifulshorif01@gmail.com : Md shoriful Islam Shorif : Md shoriful Islam Shorif
  8. dailyatrai@gmail.com : Md Rasel Kobir : Md Rasel Kobir
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন
add

বাউফলে মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মা-ইলিশ বিক্রির অভিযোগ

মারুফ হোসাইন বাউফল প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০
  • ৬৭ বার পড়া হয়েছে


পটুয়াখালীর বাউফলে সহকারি মৎস্য কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে জব্দকৃত অবৈধ কারেন্ট জাল ও ইলিশ মাছ গোপনে একটি অসাধু চক্রের মাধ্যমে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বুধবার দিনভর উপজেলা প্রশাসন ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে অবগত না করে তেতুলিয়া নদীতে দুইটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার নিয়ে উপজেলা সহকারি কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে মা ইলিশ রক্ষা অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযান শেষে ওই দিন সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা না করে নিয়মবহির্ভূত ও বে-আইনীভাবে জব্দকৃত মাছের কিছু অংশ এতিমখানায় বিতরণ ও জালের কিছু অংশ পুড়িয়ে ফেলা হয়। বাকি মাছ ও জালের বড় একটি চালান সুকৌশলে লুকিয়ে রাখা হয় অফিস কক্ষ ও অভিযানে ব্যবহৃত ট্রলারে।অনুসন্ধানে জানা যায়, মৎস্য অফিসের কর্মচারী সোহেল, সাদ্দাম ও রুহুলের মাধ্যমে জব্দকৃত অবৈধ ইলিশ মাছ গোপনে বিক্রি করেন জসিম উদ্দিন । ১কেজি ওজনের হালি প্রতি মাছ বিক্রি করা হয় ১২’শ থেকে ১৬’শ টাকায়। এই মাছ কেনা-বেচার সাথে পৌর শহরের কয়েকজন প্রভাশালী ব্যক্তি জড়িত বলেও জানা যায়। অপরদিকে জব্দকৃত অবৈধ কারেন্ট জাল দালাল জেলের মাধ্যমেই অন্য জেলেদের কাছে বিক্রি করা হয় বলে জানা যায়।নাম প্রকাশ না করার শর্তে নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মৎস্য অফিসের সাথে জেলেদের নিবির যোগাযোগ রয়েছে। অভিযানে নামার আগেই মুঠোফোনে তথ্য চলে যায় জেলেদের কাছে। মাছ ধরার সময় সিমানা নির্ধারিতও হয় ফোনে ফোনে। অভিযান চলাকালে নদী থাকে জেলে শূণ্য। নির্ধারিত সময়ের অভিযান শেষে হিংস্র হয়ে উঠে জেলেরা।মৎস্য সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানান, এবছর বাউফলে মা ইলিশ রক্ষায় কোন তৎপরতা নেই প্রশাসনের। অসাধু জেলে ও প্রভাবশালী ব্যক্তিরা র্নিভিগ্নে দেশের সম্পদ ইলিশ ধ্বংস করছেন।অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বাউফল উপজেলা সহকারি মৎস্য কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন স্বদেশ প্রতিদিনকে বলেন, অবৈধ জালের বিষয়ে জানেনা তিনি। আর কোন প্রশ্নে সদত্তোর পাওয়া যায়নি। এবিষয়ে বাউফল উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. অহেদুজ্জামান বলেন, এসব বিষয়ে আমার জানা নেই। বিষয়টি পটুয়াখালী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্লাহর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

add

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও খবর...
add
add

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০৬
  • ১২:১৪
  • ৪:৪৯
  • ৬:৫৭
  • ৮:২০
  • ৫:২৮
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত /দৈনিক আত্রাই এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
কারিগরি সহযোগিতায়: মোস্তাকিম জনি